একটি মোবাইল ফোন কেনার আগে কোন ব্যাপারগুলোর উপর বেশি জোর দেয়া দরকারঃ

একটি মোবাইল ফোন কেনার আগে কোন ব্যাপারগুলোর উপর বেশি জোর দেয়া দরকার ?
একটি মোবাইল ফোন কেনার আগে কোন ব্যাপারগুলোর উপর বেশি জোর দেয়া দরকার ? 

মোবাইল ফোন কেনার আগে আমি যে ব্যাপারগুলোর উপর জোর দেয়ার কাথা বলব সেগুলি হল-

১) মোবাইল ব্যাটারির ক্ষমতা - বর্তমানে ,দৈনন্দিন বিভিন্ন প্রয়োজনে দীর্ঘক্ষণ ব্যবহারের জন্য, মোবাইলগুলির ব্যাটারির ক্ষমতা বাড়ানো হচ্ছে। কাজের প্রকৃতি অনুযায়ী বিভিন্ন ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারিযুক্ত ফোন কেনা যায়, যথা- ২০০০এমএএইচ ,২৫০০এমএএইচ, ৪০০০এমএএইচ, ৫০০০এমএএইচ, ৬০০০এমএএইচ, ১০০০০এমএএইচ ইত্যাদি।

২) ক্যামেরা - মোবাইল ফোন কিনছেন, অথচ ছবি তোলেন না, এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না।হাতের মুঠোয় ডিএসএলআর এর পরিপূরক পেতে হলে, উপযুক্ত মেগাপিক্সেল-সম্পন্ন ফোন কেনা জরুরি। বর্তমানে ওপো, ভিভো, শাওমি, অ্যাপেল, সামসুং ইত্যাদি কোম্পানি প্রতিনিয়ত উচ্চ মেগাপিক্সেল সম্পন্নফোন বাজারে আনছে।

৩)প্রসেসর ও র‍্যাম - ফোনের র‍্যাম ও প্রসেসর যত উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন হবে, ততই ফোনটির কার্য ক্ষমতা দ্রুত ও মসৃণ হবে। বর্তমানে কোয়ালকোম-স্ন্যাপড্রাগন, ইন্টেল, মিডিয়াটেক-হেলিও,অ্যাপেল ইত্যাদি কোম্পানি উচ্চক্ষমতার প্রসেসরযুক্ত মোবাইল বাজারে আনছে।বাজেটের মধ্যে সেরা প্রসেসরওয়ালা ফোন কেনাটাই বুদ্ধিমানের কাজ।

৪)সফটওয়্যার ও হার্ডওয়্যার ডিটেলস - এই বিভাগে, অবশ্যই মোবাইলটির উচ্চতা, মোবাইল ডিসপ্লের প্রকৃতি(Oled/Amoled), ৩জি/৪জি-ব্যান্ড, অপারেটিং সিস্টেম ভার্সান(Android-এর Lollipop/Kitkat/Nougat/Oreo/Pie etc. iOS-এর 10.3.4/12.4.2/13.1.3 etc.), সিমকার্ডের প্রকৃতি(Standard/Micro/Nano) ও সংখ্যা(Single/Dule), মোবাইলের মেমোরির পরিমাণ(16GB/32GB/64GB/128GB) -এর ওপর জোর দিচ্ছি।

ধন্যবাদ ,

আরও পড়ুন ঃ কিভাবে একই সময়ে দুই ফোনে এক হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করব ।।

Post a Comment

অপেক্ষাকৃত নতুন পুরনো